জেনে নিন বীমা সংক্রান্ত প্রশ্ন-উত্তর

1494
টিপস
Advertisement
Content Protection by DMCA.com

জেনে নিন বীমা সংক্রান্ত প্রশ্ন-উত্তর

বীমা কত প্রকার ও কি কি – গ্রাম বাংলার জনমানুষের মনে এখনো এই প্রশ্নটি ক্ষুধার্ত বিড়াল ছানার মতোই উঁকি দিয়ে যায়। বীমা শব্দটির সাথে অনেকেই যেমন খুব পরিচিত, আবার কেউ কেউ ঠিক তেমনই অজ্ঞ। বিশেষ করে এটি গ্রামাঞ্চলের নীরিহ কিছু মানুষের কাছে এখনো যেন একটি বিভীষিকা। যার কূলকিনারা তারা কিছুতেই বুঝে উঠতে পারে না। তাই এর সুযোগ সুবিধা থেকেও বঞ্চিত হয় নিয়মিত।

তাই প্রথমেই আমাদের জানতে হবে বীমা কাকে বলে? এবং বীমা কত প্রকার ও কি কি ? আজকের প্রবন্ধটি আমরা সাজিয়েছি বীমা সম্পর্কিত প্রাথমিক কিছু বিষয় নিয়ে। এটির শেষ পর্যন্ত পড়লে আপনারা জানতে পারবেন বীমা কত প্রকার ও কি কি এবং জীবন বীমা কর্পোরেশন সম্পর্কে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

বীমা কত প্রকার ও কি কি ?

সহজ ভাষায়, বীমা অর্থ চুক্তি। বইয়ের ভাষায় বলা যায়, বীমা হচ্ছে একটি দ্বিপাক্ষিক চুক্তি বা দুই পক্ষের মধ্যে একটি চুক্তি। একটি নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য কোম্পানির সাথে গ্রাহকের যে চুক্তি সম্পাদিত হয় তাকে বীমা বলে। বীমা সাধারণত ৩ প্রকার।

১. জীবন বীমা।
২. স্বাস্থ্য বীমা।
৩. সাধারণ বীমা।

জীবন বীমাঃ জীবন বীমায় মানুষের জীবনের আর্থিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা হয়।

স্বাস্থ্য বীমাঃ স্বাস্থ্য বীমা এক ধরনের চুক্তি যা বীমাকারীকে কোনো দূর্ঘটনা, অসুস্থতা বা ভয়াবহ রোগব্যাধির চিকিৎসা খরচের নিরাপত্তা প্রদান করে।

সাধারণ বীমাঃ মানুষের ধন-সম্পদ যেমন; গাড়ি, বাড়ি, কল-কারখানা, ইত্যাদি বিষয়াদির নিরাপত্তা নিশ্চিত করে।

সমাজে বসবাসরত বেশকিছু মানুষের বীমা সম্পর্কে ভুল ধারণা রয়েছে। অনেকেই মনে করেন যে, বীমা হচ্ছে এক প্রকার Investment বা বিনিয়োগ। অর্থাৎ অনেকের ভাবনা এই যে, বীমা হচ্ছে এক প্রকার টাকা জমা রাখার পদ্ধতি যা পরবর্তীতে আমাদের বিপদে আপদে সুদে-আসলে পরিশোধ করে দেয়।

এখানে আমরা Investment scheme এর সাথে Insurance কে গুলিয়ে ফেলি। বীমা হচ্ছে Insurance অর্থাৎ ভবিষ্যতে আগত কোনো দূর্ঘটনার সুরক্ষা নিশ্চিতকরণ। এটি ব্যাংক কর্তৃক সরবরাহকৃত পরিষেবা Investment scheme নয়। মনে রাখবেন, বীমা ভবিষ্যতে ঘটে যাওয়া বিভিন্ন ক্ষতির জন্য আর্থিক ক্ষতিপূরণ প্রদান করে৷ অন্যথায়, এটি আপনাকে কোনো প্রকার আর্থিক সহায়তা করে না।

একটি উদাহরণ সহকারে বর্ণনা করলে আপনি বিষয়টি আরো সুন্দরভাবে বুঝতে পারবেন। ধরুন, আপনি নিজের জন্য একটি স্বাস্থ্যবীমা করলেন। বীমা কোম্পানির চুক্তি অনুযায়ী প্রতিবছর আপনাকে ৩ হাজার টাকা করে প্রিমিয়াম দিতে হবে। আপনি যত বেশি প্রিমিয়াম জমা করবেন, বীমা কোম্পানি আপনার যেকোনো ক্ষতির বিপরীতে তত পরিমাণ টাকা প্রদান করবে।

প্রতি বছরে আপনার জমাকৃত প্রিমিয়াম থেকে ১ টাকাও বীমা কোম্পানি আপনাকে দেবে না। তবে স্বাস্থ্যজনিত কোনো সমস্যায় আপনাকে যদি হাসপাতালে ভর্তি হতে হয়, সেক্ষেত্রে বীমা কোম্পানি সে অর্থ বহন করবে।

অতএব, এতক্ষণে নিশ্চয় আপনি বীমা কত প্রকার ও কি কি তা ভালোভাবে উপলব্ধি করতে পেরেছেন। এবার চলুন দেখে নেওয়া যাক জীবন বীমা কর্পোরেশন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন। এবং ধারাবাহিকভাবে আমরা সেসকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবো।

জীবন বীমা কর্পোরেশন প্রশ্ন :

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন এর উৎপত্তি কীভাবে?

উত্তরঃ বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর ১৯৭২ সালে বাংলাদেশের সকল জীবন বীমা ও সাধারণ বীমা কোম্পানিগুলো জাতীয়করণ করা হয়। এই জাতীয়করণের দ্বারা অধিককৃত কোম্পানি হ্রাস করে মোট ৫টি কোম্পানি গঠন করা হয়। সেগুলোর মধ্যে অন্যতম দুটি কোম্পানি ছিলো, সুরমা জীবন বীমা কর্পোরেশন ও তিস্তা বীমা কর্পোরেশন। পরবর্তীতে রাষ্ট্রপতির আদেশে ১৯৭৩ সালে এই দুটি সংস্থাকে একত্রিত করে জীবন বীমা কর্পোরেশন গঠন করা হয়।

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশনের প্রতিষ্ঠাকাল কত?
উত্তরঃ ১৯৭৩ সালের ১৪-ই মে।

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশনে কয় ধরনের বীমা স্কিম চালু রয়েছে?
উত্তরঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন ১৫ ধরনের বীমা স্কিমের মাধ্যমে তাদের বীমা পরিষেবা সরবরাহ করে আসছে।

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন কী সরকারের কাছে দায়বদ্ধ?
উত্তরঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন হলো স্ব-অর্থায়িত একটি বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান। সুতরাং সরকার বা ব্যাংকের কাছে এটি কোনোভাবেই দায়বদ্ধ নয়।

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন এর লাইফ ফান্ড কত?
উত্তরঃ ২০১৬ সাল পর্যন্ত জীবন বীমা কর্পোরেশন এর লাইফ ফান্ড এর পরিমাণ হিসেব করা হয়েছিলো ১৭৮২.৭২ কোটি টাকা।

প্রশ্নঃ জীবন বীমা কর্পোরেশন এর পলিসি পরিসংখ্যান কত?
উত্তরঃ ২০১৬ সাল পর্যন্ত গণনাকৃত হিসেব অনুযায়ী জীবন বীমা কর্পোরেশন এর পলিসি সংখ্যা ৩,৬৮,৯৭৭।
জীবন বীমা কর্পোরেশন কি সরকারি ?

উপরের অংশে আমরা জীবন বীমা কত প্রকার ও কি কি এবং জীবন বীমা কর্পোরেশন সম্পর্কিত কিছু প্রশ্ন নিয়ে আলোচনা করেছি। এবার আমরা আরেকটি প্রশ্নের মুখোমুখি হবো। তা হলো, জীবন বীমা কর্পোরেশন কী সরকারি?

হ্যাঁ, জীবন বীমা কর্পোরেশন একটি সরকারি প্রতিষ্ঠান। প্রায় ১৫’শ কোটির চেয়ে বেশি অংকের টাকা ঘাটতি নিয়েই প্রতিষ্ঠিত হওয়া এটি বাংলাদেশ সরকারের প্রথম বীমা কোম্পানি। বর্তমানে বাংলাদেশ সরকারের এই বীমা কোম্পানিতে ডা. সেলিনা আফরোজা চেয়ারম্যান হিসেবে কর্মরত আছেন।

উপসংহারঃ দেখতে দেখতে আমরা জীবন বীমা কত প্রকার ও কি কি প্রবন্ধের একদম শেষ অংশে চলে এসেছি। এতক্ষণে নিশ্চয় আপনারা বীমা সম্পর্কে একটি সুষ্ঠু ধারণা পেয়েছেন। বীমা সাধারণ মানুষের জীবনে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে।

এটির জনপ্রিয়তা আমাদের দেশে তেমন না থাকলে অন্যান্য দেশে এটির প্রয়োজনীয়তা মানুষ উপলব্ধি করতে পেরেছে। নিজের এবং নিজের পরিবারের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে আমাদের সকলেরই বীমা পলিসি বিবেচনায় আনা উচিত।

বিমা সংক্রান্ত কিছু প্রশ্ন দেখে নেইঃ

১। নিচের কোনটিকে নিশ্চয়তা চুক্তি বলা হয়?

ক) নৌ বীমা
খ) জীবন বীমা
গ) দুর্ঘটনা বীমা
ঘ) অগ্নিবীমা

২। জীবন বীমার ক্ষেত্রে বীমাযোগ্য স্বার্থ নেই কোনটিতে?

ক) দেনাদারের জীবনে পাওনাদার
খ) স্বামীর জীবনে স্ত্রীর
গ) পাওনাদারের জীবনে দেনাদার
ঘ) স্ত্রীর জীবনে স্বামীর

৩। জীবন বীমার ন্যূনতম কত বছর পলিসি চালু থাকলে সমর্পণ মূল্য প্রদান করা হয়?

ক) পাঁচ খ) চার
গ) তিন ঘ) দুই

৪। সর্বপ্রথম কে জীবন বীমা সম্পাদন করেন?

ক) রিচার্ড মার্টিন
খ) বারবারা উটন
গ) এমএন মিশ্রা
ঘ) এডওয়ার্ড লয়েডস

৫। দ্বৈতবীমার মুখ্য উদ্দেশ্য কোনটি?

ক) মুনাফা বৃদ্ধি
খ) ঝুঁকি হ্রাস
গ) গ্রাহক সন্তুষ্টি অর্জন
ঘ) বীমাযোগ্য স্বার্থরক্ষা

৬। আনুপাতিক হারে ক্ষতিপূরণ করা হয় কোন ধরনের বীমায়?

ক) দ্বৈত বীমা
খ) পুনঃবীমা
গ) গোষ্ঠী বীমা
ঘ) যৌথ বীমা

৭। কখন অন্যের জীবনের ওপর বীমা করা যায়?

ক) বীমাযোগ্য স্বার্থ বিদ্যমান থাকলে
খ) মুনাফা পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলে
গ) চূড়ান্ত সদ্বিশ্বাস থাকলে
ঘ) ক্ষতিপূরণ পাওয়ার সম্ভাবনা থাকলে

৮। বীমাকৃত ব্যক্তির মৃত্যুর পর বীমা দাবি পরিশোধ করা হয় কোন ধরনের জীবন বীমা পলিসিতে?

ক) সাধারণ মেয়াদি বীমাপত্র
খ) আজীবন বীমাপত্র
গ) বিশুদ্ধ মেয়াদি বীমাপত্র
ঘ) শিক্ষাবৃত্তি বীমাপত্র

৯। নিচের কোন ক্ষেত্রে বীমাযোগ্য স্বার্থ বিদ্যমান?

ক) ক্রেতার জীবনে বিক্রেতার
খ) কর্মচারীর জীবনে কর্মকর্তার
গ) বন্ধুর জীবনে বন্ধুর
ঘ) স্বামীর জীবনে স্ত্রীর

১০। বীমা কম্পানি কর্তৃক অন্যের ঝুঁকি নিজের কাঁধে নেওয়ার বিনিময় মূল্যকে কী বলে?

ক) বোনাস খ) প্রিমিয়াম
গ) কমিশন ঘ) বৃত্তি

১১। কোন ধরনের জীবন বীমাপত্রে মৃত্যু ও মেয়াদপূর্তি উভয় ক্ষেত্রেই বীমা দাবি পরিশোধিত হয়?

ক) বিশুদ্ধ মেয়াদি খ) সাময়িক গ) আজীবন ঘ) মেয়াদি

১২। জীবন বীমা চুক্তিতে বয়সের প্রমাণপত্র গুরুত্বপূর্ণ কেন?

ক) বীমাপত্র প্রদান করার জন্য
খ) বয়সের সঙ্গে প্রিমিয়ামের প্রত্যক্ষ সম্পর্কের জন্য
গ) বীমা দাবি নির্ণয় করার জন্য
ঘ) মৃত্যুহার নির্ণয় করার জন্য

১৩। কোন ধরনের জীবন বীমাপত্রে সাধারণত প্রিমিয়ামের হার অধিক হয়?

ক) গোষ্ঠী বীমাপত্র খ) আজীবন বীমাপত্র
গ) সাময়িক বীমাপত্র ঘ) মেয়াদি বীমাপত্র

১৪। নিচের কোন বীমার ক্ষেত্রে গোষ্ঠী বীমা প্রযোজ্য?

ক) জীবন খ) অগ্নি
গ) নৌ ঘ) শস্য

১৫। বীমাপত্র চালাতে অসমর্থ হলে বীমা কম্পানি বীমা গ্রহীতাকে যে অর্থ প্রদান করে তাকে কী বলে?

ক) মুনাফা
খ) সমর্পণ মূল্য
গ) বোনাস ঘ) বৃত্তি

১৬। মেয়াদি বীমাপত্রের লাভজনক দিক হলো—

i. অর্থপ্রাপ্তির নিশ্চয়তা ii. সঞ্চয় সুবিধা
iii. বিনিয়োগের সুযোগ

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) i ও iii গ) ii ও iii ঘ) i, ii ও iii

১৭। নিচের কোনটি সর্বপ্রথম জীবন বীমা প্রতিষ্ঠান?

ক) Adward Lioyd’s খ) Hand in Hand
গ) Part Assurance Company Ltd. ঘ) Alico

১৮। জীবন বীমা পলিসি গ্রহণের জন্য নিচের কোন সম্পর্কের মধ্যে বীমাযোগ্য স্বার্থ প্রমাণ করার প্রয়োজন নেই?

ক) মা-মেয়ে খ) পিতা-পুত্র
গ) স্বামী-স্ত্রী ঘ) ভাই-বোন

১৯। দ্বৈত বীমার ক্ষেত্রে বিদ্যমান থাকে—

i. একজন বীমা গ্রহীতা
ii. একাধিক সম্পত্তি
iii. একাধিক বীমাকারী

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) i ও iii গ) ii ও iii ঘ) i, ii ও iii

২০। জীবন বীমার ক্ষেত্রে বোনাস হলো—

i. কর্মচারীদের প্রদেয় উৎসব ভাতা
ii. বীমাকারীর লাভের অংশ
iii. বীমা গ্রহীতাকে প্রদত্ত লভ্যাংশ

নিচের কোনটি সঠিক?

ক) i ও ii খ) i ও iii গ) ii ও iii ঘ) i, ii ও iii

বহু নির্বাচনী প্রশ্নের উত্তর : ১. খ ২. গ ৩. ঘ ৪. ক ৫. খ ৬. ক ৭. ক ৮. খ ৯. ঘ ১০. খ ১১. ঘ ১২. খ ১৩. ঘ ১৪. ক ১৫. খ ১৬. ঘ ১৭. খ ১৮. গ ১৯. খ ২০. গ।

জেনে নিন বীমা সংক্রান্ত প্রশ্ন-উত্তর ছাড়া আরও পড়ুনঃ

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। আমাদের সাইট থেকে কপি হয়না তাই পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখতে পারেন।

Advertisement